১৮, নভেম্বর, ২০১৯, সোমবার | | ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

সোশ্যাল মিডিয়ার অবাধ ব্যবহার ক্যারিয়ারে বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে

সিএনআই ডেস্ক: সোশ্যাল মিডিয়ার যথেচ্ছা ব্যাবহার আপনার ক্যারিয়ারে বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে ডিজিটালাইজেশনের এই যুগে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যাবহারের মাধ্যমে আমরা কর্মজীবনে বিভিন্নভাবে উপকৃত হচ্ছি, এর মাধ্যমে আমরা আমাদের নিজ নিজ সেক্টরের সফল ব্যক্তিদের সাথে নেটওয়ার্ক গঠনের একটা বিশাল সুযোগ পাচ্ছি। পারস্পরিক জ্ঞ্যান, অভিজ্ঞতা ও পরামর্শ বিনিময়ের মাধ্যমে নিজেদেরকে আরো সমৃদ্ধ করছি প্রতিনিয়ত। ফ্রেশাররা জব মার্কেট সম্পর্কে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ন তথ্য, পরামর্শ, চাকুরির খবর পেতে পারে তাদের সিনিওরদের কাছ থেকে। অন্যদিকে, সোশ্যাল মিডিয়ার যথেচ্ছা ব্যাবহার আপনার ক্যারিয়ারে ফেলতে পারে বিরুপ প্রভাব। তাই সচেতন হতে নিম্নলিখিত অভ্যাস গুলু পরিহার করুনঃ ১। আপনার জব অথবা বস সম্পর্কে অভিযোগ: আপনি যখন আপনার জব অথবা বস সম্পর্কে সোশ্যাল মিডিয়াতে একটি নেতিবাচক মন্তব্য করবেন, তা মুহূর্তেই ছড়িয়ে পড়বে আপনার বন্ধু তালিকায় যুক্ত সকলের কাছে। আপনি হয়তো মনে করছেন আপনার বস আপনার বন্ধু তালিকায় নেই তাই আপনি নিরাপদ কিন্তু আপনার যে কোন সহকর্মি যে কোন সময় আপনার বস কে সেটি ফরোয়ার্ড করতে পারে যা আপনার চাকুরীর জন্য ক্ষতির কারন হতে পারে। শুধু বর্তমান জবের জন্য ক্ষতিকর তা নয়, এটি আপনার ভবিষ্যৎ জবের জন্যও ক্ষতির কারণ হতে পারে। অন্য আরেকজন নিয়োগকর্তা যখন দেখবে আপনি পুর্বে আপনার কোম্পানী সম্পর্কে সোশ্যাল মিডিয়াতে নেতিবাচক মন্তব্য করেছেন তখন উনারাও আপনাকে নিয়োগ দিতে উতসাহ বোধ করবেন না, আপনি যত যোগ্যপ্রার্থী ই হোন না কেন। ২। নিজের কোম্পানীর প্রডাক্ট, নিয়মনীতি নিয়ে বিদ্রুপ: নিজের কোম্পানীর কোন প্রডাক্ট, নিয়মনীতি আপনার ভাল না ই লাগতে পারে তা আপনি যথাযথ করতৃপক্ষের কাছে অভিযোগ করেন উনারা ব্যাপার টা সংশোধন করার চেষ্টা করবেন, কিন্তু কোন অবস্থাতেই এই বিষয় গুলু সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করবেন না। আপনি হয়ত মনে করছেন সোশ্যাল মিডিয়া আমার একান্ত ব্যক্তিগত বিষয়, আমি যা ইচ্ছা পোস্ট দিতে পারি, কমেন্ট করতে পারি; কিন্তু আপনার এ ধারনা ভুল। সোশ্যাল মিডিয়া এখন আর নিছক ব্যক্তিগত বিষয় নয়। ডিজিটাল মার্কেটিং এখন ব্যবসার প্রচারের একটা বিশাল মাধ্যম। এখানে আপনার কোম্পানীর প্রতিদ্বন্দ্বীরা যেমন রয়েছেন তেমনি সম্মানিত ভোক্তারা ও রয়েছেন। আপনার একটি বিরুপ মন্তব্যের কারনে ঐ কোম্পানীর ব্যবসার বিশাল ক্ষতি হতে পারে, মার্কেটে শেয়ারের দাম কমে যেতে পারে, আর এজন্য আপনি চাকুরী থেকে বহিস্কৃত হতে পারেন। কেননা,একজন কর্মী হিসেবে কোম্পানির প্রতি অনুগত থাকা আপনার নৈতিক দায়িত্ব। ৩। স্ট্যটাস, কমেন্ট এবং ছবি পোস্ট করার ব্যাপারে শালীনতা বজায় রাখুন: সোশ্যাল মিডিয়াতে সংযত ভাবে স্ট্যটাস দিবেন, কমেন্ট করবেন এবং অশালীন ও আপত্তিকর ছবি পোস্ট করা থেকে বিরত থাকুন। কারণ আজকাল কর্মী নিয়োগের সময় তাদের স্যোশাল মিডিয়াগুলু যাচাই করা হয়। আপনার স্ট্যাটাস, কমেন্ট এবং ছবি থেকে আপনার ব্যক্তিত্ব, রুচি সম্পর্কে ধারনা পাওয়া যায় এবং আপনি কি পজিটিভ না নেগেটিভ মানসিকতার মানুষ সেটা বোঝা যায়। পরিশেষে বলতে চাই, আমরা অবশ্যই স্যোশাল মিডিয়া ব্যবহার করব কিন্তু তার আগে এগুলু ব্যাবহারের এটিকেট গুলু ভালভাবে জেনে নিব। -লেখক: এস এম আহ্‌বাবুর রহমান, এইচআর প্রফেশনাল এন্ড ক্যারিয়ার কোচ।