২০, আগস্ট, ২০১৯, মঙ্গলবার | | ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

৪ দফা দাবি নিয়ে ব্যারিস্টার সুমনের পাশে ঢাবির শিক্ষার্থীরা

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমনের বিরুদ্ধে করা মামলা আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থীরা। আজ মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে এক মানববন্ধনে এ দাবি জানানো হয়। সুমনের বিরুদ্ধে অপপ্রচারকারীদের আইনের আওতায় আনাসহ চার দফা দাবি জানান তারা। মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলাটি মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। ফেসবুকে ব্যারিস্টার সুমনের নামে খোলা ফেক আইডি থেকে দেয়া একটি বিভ্রান্তিকর স্ট্যাটাসের ওপর ভিত্তি করে এ মামলাটি দায়ের করা হয়। যে ফেক আইডি থেকে ওই বিভ্রান্তিকর স্ট্যাটাসটি দেয়া হয়েছে তার সঙ্গে ব্যারিস্টার সুমনের কোনো প্রকার সংশ্লিষ্টতা নেই। গত ২৮ মে ওই পেজের বিরুদ্ধে শাহবাগ থানায় ব্যারিস্টার সুমন নিজেই একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। জিডি নম্বর ১৭০৯।’ তারা আরও বলেন, ‘ফেসবুক লাইভে জনসচেতনতা বৃদ্ধির পাশাপাশি দীর্ঘদিন যাবত সমাজসেবায় নিয়োজিত রয়েছেন ব্যারিস্টার সুমন। নিজের কর্মগুণেই তিনি আজ জনপ্রিয়তা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন। এই জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে একটি মহল প্রতিনিয়তই তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার চালাচ্ছে। দেশবিরোধী একটি কুচক্রীমহল তার নামে বিভিন্ন ফেক আইডি খুলে দেশের মানুষকে বিভ্রান্ত করে দেশকে পিছিয়ে দিতে চায়।’ এ সময় শিক্ষার্থীরা ৪ দফা দাবি জানান। দাবিগুলো হলো- ১. ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমনের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা ও ভিত্তিহিন মামলা আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে প্রত্যাহার করতে হবে; ২. দেশের বৃহত্তর স্বার্থে ব্যারিস্টার সুমনের জীবনের নিরাপত্তা জোরদার করতে হবে; ৩. সোশ্যাল মিডিয়াতে যারা সুমনের নিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছেন তাদেরকে চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনতে হবে; ৪. যে আইনজীবী তার নিজের ব্যক্তিস্বার্থ চরিতার্থ করতে ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করেছেন তাকে অবশ্যই জাতির সামনে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে। এছাড়াও মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন ডাকসুর সদস্য রাকিবুল হাসান ঐতিহ্য, ছাত্রলীগের উপ-প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম বিপ্লব, জহুরুল হলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিফাত উদ্দিন, ছাত্রলীগের উপ-অর্থ বিষয়ক সম্পাদক ইসতেয়াক প্রমুখ। সিএনআই/এসআই